প্রতি মুহূর্তে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল’র আপডেট দেখুন

  ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

নিউজ ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
উইন্ডি ওয়েব সাইট থেকে নেওয়া ঘূর্ণিঝড়ের সর্বশেষ তথ্য, ছবি: সংগৃহীত

উইন্ডি ওয়েব সাইট থেকে নেওয়া ঘূর্ণিঝড়ের সর্বশেষ তথ্য, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

গতিবেগ বেড়েছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলের। বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়টি। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে পায়রা ও মংলা সমুদ্র বন্দরের ৭ নম্বর সংকেত নামিয়ে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। আর চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরের ৬ নম্বর সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ৯  নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা ও সাতক্ষীরায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে, শুরুর দিকে ঘূর্ণিঝড়ের বাতাসের বেগ ঘণ্টায় ৮০-৯০ কিলোমিটার ছিল। তবে শুক্রবার (৮ নভেম্বর) দুপুর থেকে ক্রমেই শক্তি বাড়তে থাকে ঘূর্ণিঝড়টির। শক্তি বাড়িয়ে ইতোমধ্যে দ্বিতীয় ক্যাটাগরির ঘূর্ণিঝড়ে উন্নীত হয়েছে। বুলবুল ১৩০ কিলোমিটার বেগে আঘাত হানতে পারে। এতে ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে।

আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, ‘বাংলাদেশের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। শনিবার এটি খুলনা সংলগ্ন সুন্দরবনের উপকূলীয় এলাকায় আঘাত হানতে পারে। সারাদেশে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে। তাপমাত্রা ধীরে ধীরে কমতে থাকবে।’

খুলনা, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, বরগুনা, পটুয়াখালী, পিরোজপুর ও ভোলা জেলাকে ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় রাখা হয়েছে। সাত জেলার আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে লোক সরিয়ে নেওয়ার জন্য প্রস্তুতি রয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্রগুলোয় ২০০০ প্যাকেট করে শুকনো খাবার পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’-এর আশঙ্কায় ঢাকা সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল থেকে সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। দুপুর ১২টা থেকে সমুদ্র উপকূলীয় অঞ্চলসহ কয়েকটি রুটের যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হয়। সন্ধ্যা ৭টা থেকে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। আবহাওয়া পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত সমুদ্র উপকূলে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকবে বলে জানা গেছে।

ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় উপকূল এলাকার সাইক্লোন শেল্টারগুলো প্রস্তুত করা হয়েছে। একই সঙ্গে মেডিকেল টিমও প্রস্তুত করা হচ্ছে। উপকূল এলাকায় সরকারি কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। জেলায় জেলায় জরুরি বৈঠক ডেকে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ মোকাবিলায় ২২টি মন্ত্রলণালয়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ জেলা-উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড. এনামুর রহমান।

আপনার মতামত লিখুন :

  ঘূর্ণিঝড় বুলবুল